নানিদের কোলে সন্তান রেখে পরীক্ষা হলে মায়েরা

এ বছরের এসএসসি ও সমমানের সমাপনী পরীক্ষায় ভোলার লালমোহনে নানিদের কোলে সন্তান রেখে পরীক্ষা দিয়েছেন দুই মা। রোববার লালমোহন মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন ওই মায়েরা। এরমধ্যে একজন সুমি আক্তার। তার এক বছরের মে'য়েকে পরীক্ষা কেন্দ্রের বাইরে নানির কোলে রেখে ভেতরে পরীক্ষায় অংশ নেন তিনি।
সুমি বালুরচর হাট ইস'লামিয়া দাখিল মাদ্রাসা থেকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন। বাইরে থাকা ওই ছা'ত্রী সুমির মা রেনু বিবি বলেন, দুই বছর আগে ঢাকায় বেড়াতে গিয়ে একজনের সাথে স'ম্পর্ক করে বিয়ে হয় সুমির। এরপর সন্তান হয় তার। তবে পড়ালেখা চালিয়ে যেতে চায় সুমি।যার জন্য দাখিল পরীক্ষায় অংশ নেয় সে।

অন্যদিকে, একই কেন্দ্রের বাইরে মাত্র ১৪ দিনের এক শি'শুকে কোলে নিয়ে বসে থাকতে দেখা যায় এক মহিলাকে। তার থেকে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কোলে থাকা শি'শুটির নাম আলী। তার মা লাইজু ভিতরে পরীক্ষা দিচ্ছেন। লাইজু লর্ডহার্ডিঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এবছর এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। করো'নায় দীর্ঘদিন বিদ্যালয় বন্ধ থাকায় পারিবারিকভাবে স্থানীয় এক যুবকের কাছে বিয়ে হয় তার। সামনে পড়ালেখা চালিয়ে যেতেই সন্তান জন্মের পরেও লাইজু পরীক্ষায় অংশ নেন বলে জানা যায়।
এ ব্যাপারে উপজে'লা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মক'র্তা মো. রফিকুল ইস'লাম বলেন, করো'নায় দীর্ঘদিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার কারণে কিছু অসচেতন পরিবার তাদের সন্তানদের বিয়ে দিয়েছে। তারপরেও যেহেতু ওই শিক্ষার্থীরা পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে, তা অবশ্যই ভালো কাজ। আম'রা এসব শিক্ষার্থীদের পড়ালেখা অব্যাহত রাখতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো। এছাড়াও প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এ ধরনের বাল্যবিয়ে রোধের জন্য সকলকে সতর্ক করা হবে।

Back to top button

You cannot copy content of this page